সাইবার যুগের কবিতা

দারা মাহমুদ কবিতা সম্পর্কে চূড়ান্ত কোনো কথা বলা সমীচীন নয়। কারণ, কবিতা পৃথিবীর একটা অমীমাংসিত বিষয়। যেটা ঘটছে মানুষ যখন জঙ্গল থেকে গুহায় উঠে এসেছে, পেটে চারটে খাবার জুটেছে, মনে কিছুটা ফূর্তি জেগেছে তখন থেকে। মানুষের সাথে সাথে কবিতারও বিবর্তন ঘটেছে যুগে যুগে। অনেকেই কবিতা কী, কবিতা কেন তার একটা …

সম্পুর্ন​

দারা মাহমুদ-এর একগুচ্ছ কবিতা

বিড়াল কাব্য বিড়ালও কবিতা লেখে এই কথা মানুষ জানেনা, জানে বিড়ালের প্রেমিকারা যখন রাত্তির ঘন হয়ে আসে ঘুমিয়ে পড়ে ঘরবাড়ি বিড়াল তার কবিতার খাতা মেলে ধরে তার কাব্য কান্নার সুর হয়ে বেজে ওঠে জানালা কার্নিশে এই ছোট্ট তুলতুলে নরম প্রাণীটির এতোই দুঃখ,এতোই বেদনা সে কথা সে জানে, যে বোঝে বিড়ালের …

সম্পুর্ন​

দারা মাহমুদ-এর পাঁচটি কবিতা

সাঁতার ও স্নান সব নদী এক সময় ফুরিয়ে যাবে বন্ধু হে সব নদী এক সময় ফুরিয়ে যায় এটাই নিয়ম নদী ফুরুলে পারদের নদীতেই স্নান করতে হবে নদী ফুরুলে পারদের নদীতেই সাঁতার কাটতে হবে যে ভাবে দান্তে বিয়াত্রিস নদীতে সাঁতার কেটেছে সেভাবেই না হয় কাটো অথবা নদী ভাগ করো তবুও তোমাকে সন্তরণ …

সম্পুর্ন​

দারা মাহমুদের একগুচ্ছ কবিতা

দারা মাহমুদ   প্রেম মানুষ নিজের থুতু নিজে খায় পেটের ভেতর তা আবার জারক রসের কাজ করে তবে থুতু একবার মুখ থেকে বেরিয়ে গেলেই তা আর খাওয়া যায় না   পুরুষ পাথর পুরুষ পাথর বালি দিয়ে তৈরি নারীর টোকায় ভেঙে যায় একথা অভিললনা মৌনি যেমন জানে বস্তির বিন্দুও সেরকম  

গল্প: ঘোর

দারা মাহমুদ   আমার বাবার একটা প্রিয় কুকুর ছিলো, নাম কালু। বাবা যখন কোর্টে যেতেন, কুকুরটা পেছন পেছন যেতো। বাবা আর মহুরি চাচা রিকশায় উঠলে, কালু ফিরে আসতো। লেজ নাড়াতে নাড়াতে। এই ভাবে প্রতিদিন কালু বাবাকে সি অফ করতো। একদিন কুকুরটা মারা গেলো। কুকুরটার মৃত্যুতে বাবা খুব দুঃখ পেয়েছিলেন। একদিন …

সম্পুর্ন​

গল্প: অচেনা শহর

দারা মাহমুদ ব্যাপারটা কি? তোরা সব এমন করছিস যেন বাড়িতে কেউ মরে গেছে! একটু চড়া গলায় কথাগুলো বললো আরিফ। খুকু কোনো কথা বললো না। আরিফ একটা লুচি মুখের মদ্যে ঢুকিয়ে বেশ কিছুক্ষণ চিবুলো। একটু পানি খেলো। হঠাৎ করেই খুকুর চোখের দিকে সন্দেহের চোখ ছুঁড়ে দিয়ে বললো, তুই বিকেলে পড়তে যাসনি …

সম্পুর্ন​

চারটি কবিতা

দারা মাহমুদ স্মৃতিঘর   খোলস ছাড়তে ছাড়তে সে ছুটে যায় দিন আর রাত্রির টানেল বরাবর তার পিছনে ধাওয়া করে তারই ছেড়ে আসা মুখোশগুলো একদিন যাদেরকে নায়িকা ভেবে প্রবল বিভোর ছিল আজ তারা প্রেত হয়ে মেলে ধরে দাঁতের করাত পৃথিবীর এসব বীভৎস ইমেজ থেকে দূরে— কোনো অচিনপুরে যেখানে মধু ও মদের …

সম্পুর্ন​