গাছ আর ফল ধর্ম হোক – ১

শিবলী সাদিক নদীর কিনারে নদীর কিনারে এসে চেতনা হারিয়ে যায়— তীরদেশে ইতিহাস আর নিচে নিসর্গ বহতা, চাইলেই বুঝি আমি সীমা পার হয়ে যেতে পারি। তবে স্রোত কি আমাকে নেবে, আর আমি পাব কোথা সার্কাসের তাঁবু, জানোয়ার, শহরের পার্ক, যার গাছে চুলা জ্বলে, ক্ষুধার্ত উন্মাদ কিছু ঘিরে থাকে? বাজারে ফলের রং …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিক-এর কবিতাগুচ্ছ

ঘাট চারুলতাদের ঘাটে মাঝে মাঝে বসি, যদিও দেখি নি তাকে বাড়ির জানালা দিয়ে তার গয়নার মৃদু গন্ধ ভেসে আসে, তার গান জলে ভাসে, চারুকে না দেখে ভালবাসি তার জলে-ভাসা হাঁস ভালবাসি রৌদ্রে তার সম্প্রচার, কচুরিপানার ফুলে রক্তসম্প্রপাত তার কখনো দেখি নি তাকে, তবু রংকাহিনী ফুটছে জলে কলমির নীল ফুলে জলে …

সম্পুর্ন​

নিসর্গ সিরিজ ৩

শিবলী সাদিক                                      নিসর্গ সিরিজ ১   ।। নিসর্গ সিরিজ ২ গাছকে লেখা চিঠি আজো গাছ সম্বন্ধে তেমন করে কিছু বলা হয় নি, এমন কি জগদীশ বিজ্ঞানী গোপন করেছেন সেই সব কথা যা খুবই ব্যক্তিগত গোপনীয়, ঘুমপ্রবণ আয়নার সামনে বলে যায় সকলেই নিজস্ব ভাষায়। ব্যতিক্রম ইতিহাসে, ভূ-ভারতে শুধু একজন। বহুদিন আগে এক …

সম্পুর্ন​

নিসর্গ সিরিজ ২

শিবলী সাদিক ল্যান্ডস্কেপ সৌন্দর্য যে এক প্রকার আয়না আগে বুঝি নাই, জলে ঢোলকলমির কাব্য পাঠ করে আমি ক্রমে অন্ধ হয়ে পড়ি। বুঝতে পারছি পাতার আড়ালে সব গান যে লুকিয়ে রাখে জলপিপি, ফলে ল্যান্ডস্কেপ করা সম্ভবই নয়। পাতা বুঝতে গেলে গান আর তার অদৃশ্য রং তো আঁকা হবে না। বিকালে পুকুর …

সম্পুর্ন​

নিসর্গ সিরিজ ১

শিবলী সাদিক   বিদূষকের কথা বৃষ্টির পরে এখন সব শান্ত হয়ে এল, গাছের থেকে সুন্দর নেমে এল। জানি সব নাচ দেখা হয়ে গেছে, শাড়ির গোপন ভাঁজ দেখে কবি চলে গেছে। তাহলে সুন্দর কী দেখাবে? মঞ্চের বাইরে কী কিছু ঘটবে? বিদূষক হেসে বলে- নাচ দেখা শেষ, বাড়ি যাও এবার গাধার পিঠে …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিকের দীর্ঘ কবিতা

পদ্মপুকুর   ১ যদি পদ্মপুকুরে নামতে পারি তুলে নেব সব রং আর বর্ণলিপি পদ্ম হয়ে তাবৎ বিকাশ সেথা জ্বলে তার রং আর রূপ তাই এত অপরূপ দেশ-কাল জলে থর থর কাঁপে শোভায় মরণ হলে এই ঘাটে স্তব্ধ হয়ে অন্ধ হয়ে সব বাক্য ধরে বাকহীন হয়ে বসে থাকা, আর বসে থাকতে …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিক-এর কবিতা – ১

চল মন নদীর কিনারে যত মাঠ আছে, তার কাছে চল মন পশু আর পতঙ্গের কাছে কিছু দিন ঘুরে আসা যাক বায়ুসেবনের পর নতুন ভাষায় সব পুরাতন কথা ভাবা যেতে পারে, মনে হতে পারে সভ্যতার সব ছেড়ে মাছ আর পাখিদের সাথে ভাগ করে নিই এ জীবন যাই মেঘ আর বিদ্যুতের কাছে, …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিক-এর কবিতা

গাছ ১ গাছকে সম্পূর্ণ দেখা কখনো সম্ভব নয় দৃশ্যের আড়ালে আরো দৃশ্য, গান থেকে যায় কেউ কেউ বলেন অনেক যাদুঘর, প্রত্নযুগ আছে সূর্যের চুম্বন, ঝড়, জলোচ্ছ্বাস, ঘোড়ার কংকাল রং, রেখা দিয়ে আঁকা সবুজ রহস্যময় ক্যানভাসে সময় তো হারায় না, তার নথিপত্র বাতাসে পাতায় দোলে সব জ্ঞান বিষ কাঠে স্তব্ধ হয়ে …

সম্পুর্ন​

নৌকা বিষয়ক একগুচ্ছ কবিতা

শিবলি সাদিক নৌকা-১ তারার আলোর নিচে নৌকার ছইয়ে শুয়ে মনে হল এই সন্ধ্যা ততটা নিকটবর্তী নয়, যেমন নিকটবর্তী নয় নরম তারকারা। নদীজলে তারকাদের ভাষা নেচে ঢেউয়ে ঢেউয়ে উপচায়, আর ক্রমে গ্রাস করে লোকালয়। ভাবি, এই আক্রমণে, এই নাচঘরে রাতভর বসে আমি দেখতে পাব কি অমাজল, যা থেকেই উৎসারিত নদী ও …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিক-এর একগুচ্ছ কবিতা

স্মৃতি জলাশয়ে মাছ হয়ে তোমার স্মৃতির মধ্যে ডুবে আছি। এইভাবে আজ আমি বেঁচে আছি। ইতিহাসের বাইরে। গাছ বা পাথর হয়ে। যখন প্রথম দেখা আমাদের, তখন মগজে ছিল মাছের কুসুম, শিখি নাই কোনো ভাষা, দেহ ছিল আমাদের সকল যোগাযোগের, বোঝাপড়ার মাধ্যম। পাখিদের ডিমে জায়মান হয়ে, রংধনুর পালক পরে সবেমাত্র ভাসমান সর্বলোকে, …

সম্পুর্ন​

শিবলি সাদিকের কবিতা

কন্যার সাথে খেলা আমার শিশুকন্যার সাথে খেলার নেশায় সাত তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরি, শহরের মেট্রো, বাস, বাতিস্তম্ভ— সকলেই জানে শিশুকন্যাটিই শুধু এসবের খবর রাখে না আমাদের খেলার নিয়ম খুব ঠিক করা নাই, তবে হামাগুড়ি দিয়ে শুরু হলে সবচেয়ে মজা হয়, কারণ হামাগুড়ি দিয়ে এমন সব সুর আর সুড়ঙ্গের ভিতরে যাওয়া যায়, …

সম্পুর্ন​