পাঁচটি কবিতা

সুবীর সরকার   ছায়া ছায়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি মজা করে কথা বলছো লাজুক মুখ,পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হেসে ওঠে কাঠের হাতি   প্রচ্ছদ যেমন জন্মদিন, পাকা কাঁঠাল একঝলকে চড়ুই পাখি মঞ্চের দখল নিচ্ছি সহবাস বস্তুতই বহুচর্চিত প্রচ্ছদ   মুখোশ গাছের নিচে দাঁড়িয়ে থাকলেই হয় না;নিঃশ্বাস ঘন হবার মূহুর্তে জলপ্রবাহ।খোলস ছাড়বার

পাঁচটি কবিতা

সুবীর সরকার ঘুঙুর যে কোনো রাস্তায় যাও দেখবে মরণপণ লড়াই। নদীর ধারে কুড়িয়ে পাওয়া পাথর নদীতেই ছুঁড়ে দিচ্ছি রাত জাগি,টোকা মেরে শীত সরাই সেতুতে ওঠার আগে অবস্থান বদল আর ভ্রু-সন্ধির ঘাম ঘুমের ভিতর আর ঘুঙুরের মতো বাজছে বিদ্রুপের সিটি। কিছু কলঙ্ক লেপে দাও, নিচু হয়ে কুড়োই।   গৌরচন্দ্রিকা রক্ত ডানা …

সম্পুর্ন​

এলিজি

সুবীর সরকার ১। তাঁতশিল্পের কথা শোনাই মৎসপিপাসুকে প্রধান খাদ্যের বদলে রকমারী                     দ্রব্য ঢালু চালের বাড়ি। কাঠের                  পা। বৃষ্টিহীন মাঠে মাঠে কাঁটাগাছ সংরক্ষণ কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে ফলাহার চর্মরোগীদের নিযুক্ত করা হচ্ছে                     গালিচা শিল্পে চা-পান বিরতিতে বাঁশি শুনি পেখম মেলার অবসর পায় না                     ময়ুরী ২। খামারবাড়ি চলে যাচ্ছি নির্বাসনে যেখানে লালশাক, ভেটকি …

সম্পুর্ন​