সুস্মিতা চক্রবর্তীর একগুচ্ছ কবিতা

এ বসন্তে দোলের বাতাসে দোলপূর্ণিমার এই নির্মল ফাগুনে আমি পরকীয়া করি বন্ধু বিহনে এ কীয়া পাতার সাথে ঝলোমলো দিনে এ কীয়া গন্ধের সাথে আমের মুকুলে এ কীয়া গায়েতে মাখি দোলের বাতাসে এ কীয়ায় ছুঁয়ে যাই পথপার্শ্ব চিনে এ কীয়া ছড়িয়ে যায় শরীরে মননে এ কীয়ায় অপেক্ষা নয়নে নয়নে এ কীয়ায় …

সম্পুর্ন​

শুভকামনা

সুস্মিতা চক্রবর্তী আর কিচ্ছু জানতে চাই না, শুধু দেখতে চাই যে তুমি ভালো আছো। যে রকম ভালো থাকা অধরা চাঁদের রাতে, ধুলো ওড়া পথে পাওয়া বোষ্টমীর সহজ মানুষ। যে রকম হাসিহাসি ঠোঁট আর বিনয়ের কাব্য হাতে; চশমা-পড়া তুমি সে কানাই মাস্টার! নিত্যানন্দ বেশে তবু এলোমেলো চেতন-পুরুষ! প্রেমের তৃষ্ণার মতো তোমার …

সম্পুর্ন​

কবিতা:শীত-সকালের সূর্য

সুস্মিতা চক্রবর্তী   ১ শীত-সকালের সূর্যকেই শুধু ভালোবেসে পিঠ দেয়া যায়! শেষ অঘ্রাণের এই শীতার্ত বেলায়, প্রিয়তম− বহূদূরে তবু এভাবেই থেকো নীলিমায়। ঢেকে দিও পৃথিবীর সবটুকু আঁধারের দিন, তোমার আভার রাশি চির অমলিন; গাছের পাতার সাথে অদৃশ্যের মাঝে বুঝি বাজিয়েছো বিণ! ২ যখন কুয়াশার কুহকেরা ক্লান্তিতে জুবুথুবু গাছের ছায়ায়, তোমার …

সম্পুর্ন​

সুস্মিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা

ভোল অপচয় কী অপচয় কী যে অপচয় হৃদয়ের! কোন সে ক্ষরণ কার খেসারত হিসেবের। অথচ, জীবন সদা বেগবান– এই ধুলা-মাটি-গাছ মহীয়ান, এই জলরাশি চাঁদ আর আলো সকলের। ভালবাসাবাসি বেঁচে থাকা সব মানুষের। এই স্বপ্নের নীল চাঁদোয়ার নিচে যে, কত আদরের-প্রণয়ের মনপাখি সে– ডেকে ডেকে আজ ক্লান্ত বৃথাই বেলা যে; অথচ, …

সম্পুর্ন​

সুস্মিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা

নীলাভিলাষ নীলের দরদী আমি তুমি বঁধু নীলের প্রতিমা জগতের সব নীল তোমা মাঝে ফুটিয়াছে গাঢ়। অনড়-অলস আমি নীল-নাথবতী নীলময় ব্রহ্ম দেখি নীলের তাপসী ও নীল লাগিয়া আমি ডাকাতিয়া বাঁশি! ও নীল কখনো তুমি নীলাভ্র-আকাশ ও নীল কখনো তুমি তুমুল হুতাশ ও নীল কখনো চাঁদ নীলিম-চন্দ্রিমা ও নীল কখনো রুদ্র প্রলয়-গরিমা …

সম্পুর্ন​