চৈতালী চট্টোপাধ্যায়-এর দুটি কবিতা

কফিশপ

তোমার চুমুর পাশে আমার চুমুক
অসম্ভব ঠাণ্ডা লাগে,লাগবেই।
এক্সট্রা ক্রিমের ছাদে বরফের কুচিগুলি
পাখনা উঁচিয়ে দেয়
ঠোঁট পাবে বলে।
এখানে যৌবন বাঁধা পড়ে আছে।
এইখান থেকে যদি এক-পা বাড়াই,
আবার বাইফোকাল,
আবার বলিরেখাসব,
বাসরাস্তার ভিড়ে লাট খেতে-খেতে
আবার ঘামের মধ্যে ঘাম, মিশে যাই।
তোমার নাকের পাশে নাকছাবি আমার,
ফেনা ছলকায়,তাই
দুলে ওঠে, উঠবেই!
জাগে জিভ, ভাগ্যলিপি
চেটে খাবে বলে

 

দ্রৌপদী

ভালবাসিসনি , তবে কেন আস্তিত্বিক
প্রশ্নে অমন বন্যা-পীড়িত তোর চোখ
যেখানে সেখানে শরীরী সুখের মোটিফ-এ
থুতু লেপে দিস হিংস্র হালকা ও-ঠোঁটে
কারও ভাগে তোর কণ্ঠা কারও-বা উরুদ্বয়
নেলপালিশের বিভাটুকু কারও সঞ্চয়
ঘৃণা করিসনি তবু ময়লাটে বরফে
খোঁপা পেতে দিয়ে চেয়ে নিতে চাস শীতঘুম

 

Facebook Comments

One Comment

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।