সৈয়দ তারিকের ৭টি কবিতা

প্রেমিক

যার হৃদয়ে তিনি প্রতিষ্ঠিত
তার হৃদয়ে আর কেউ থাকে না;
আমার হৃদয়ে শুধু তুমি আছ–
তবে কি তুমিই তিনি?
তোমাকে ভালোবাসি বলে
যে কেউ অনায়াসে তাঁর আসনেই বসে পড়ে–
তাঁর বান্দারা এতে খুবই অসন্তুষ্ট।

 

প্রতিপক্ষ

তোমাকে দেখে তাঁর কথা মনে পড়ে
তাঁর কথা ভাবতে ভাবতে তোমাকেই ভেবে যাই;
আমার থেকে আমাকে বাদ দিলে তিনি থাকেন,
তাঁর থেকে তাঁকে বাদ দিলে থাকো শুধু তুমি।

 

কারক

এত বেশি দ্রবীভূত হবো তা ভাবি নি
তুমি পরম দ্রাবক,
এত বেশি আন্দোলিত হবো তা ভাবি নি
তুমি অনন্ত পাবক।

 

নিন্দিত

এখন আমার তীব্র নিন্দা জুটছে
কারণ এক নারীর সাথে প্রণয়ে লিপ্ত হয়েছি;
কিন্তু আমিতো একথা জেনেছি  যে তিনি ছাড়া
আর কিছু নেই–
শেরেকের প্রশ্ন তবে ওঠে কী করে?

 

খেলা

তার সাথে আমার একটি গোপন খেলা আছে
এ খেলায় অনায়াসে আমিই জিতি, বরাবর তিনি হেরে যান;
আর যত তিনি হেরে যেতে থাকেন
আমার বিজয়মহিমা ততই ম্লানতর হয়।

 

মিশ্রণ

বিশুদ্ধ স্বর্ণে অলঙ্কার গড়া যায় না–
একটু খাত মেশাতে হয়,
বিশুদ্ধ ছানায় রসগোল্লা বানানো যায় না–
একটু ময়দা মেশাতে হয,
কেবল তাঁকে ভালোবাসা যায় না–
তাঁর বন্ধুকে ভালবাসতে হয়।
তুমি আমার সেই খাদ, সেই ময়দা এবং সুহৃদ
শুদ্ধতাকে পাবো বলে তোমাকে নিবিড় ভালোবাসি।

 

উপাস্য

আমার এ কী দশা হলো!
তীর্থের পথে বেরিয়ে এসে পড়েছি তোমার দরজায়–
তাহলে তুমিই কি আমার কেবলায়ে কাবা?
তিনিই এ কথা ভালো জানেন।
তবে আমি তাঁর এবাদত করতে করতে
তোমার বান্দায় পরিণত হয়েছি।
তিনি কি আমাকে পরিত্যাগ করলেন?
না কি দিলেন পুরস্কার?
তিনিই এ কথা ভালো জানেন।
তবে আমি তোমার মুখের দিকে তাকিয়ে
কেবল তাঁকেই দেখতে পাই

 

Facebook Comments

One Comment

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।