সাহিত্য ক্যাফে সম্পর্কে

বাঙালিরা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকলেও অনলাইনের কারণে আজকাল অনেক সময় মনে হয় যেন নিজের শহরে কোনো এক ক্যাফেতে বসে সবাই মিলে একসাথে আড্ডা দিচ্ছি, এশিয়া আফ্রিকা ল্যাতিন আমেরিকার সাহিত্য নিয়ে। “সাহিত্য ক্যাফে” যেন সেই আড্ডারই প্রতিফলন। লেখালেখি ও সৃজনশীলতার প্রতি দায়বদ্ধরাই হবেন এর মূল চালিকাশক্তি! একক কোনো সম্পাদকের পরিবর্তে  কয়েকজন সম্পাদকের মিলিত প্রচেষ্টায় পরিচালিত হয় এই ওয়েব ম্যাগ।

“সাহিত্য ক্যাফে” সম্পর্কে আর তেমন কিছু বলতে চাই না এই মুহূর্তে। কিছুদিন যাক, চেহারাটা কি হয় আগে দেখি। লেখক-পাঠক ও অন্যান্য সৃজনশীল মানুষেরা এটাকে কিভাবে নেয় তা জেনে নিয়ে তারপর না হয় পত্রিকার স্বর চিহ্নিতকরণের চেষ্টা করা যাবে। ততদিন সাহিত্য ক্যাফে চলুক ক্যাফের মেজাজে।

সম্পাদক
০১/০৮/২০১১

অনেকেই আমাদের কাছে লেখা প্রকাশের মানদণ্ড সম্পর্কে জানতে চান। এ ব্যাপারে সাহিত্য ক্যাফের লেখাগুলি দেখতে পারেন। লেখার সাথে পূর্ণ ঠিকানা ও লেখকের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি থাকলে লেখা বিবেচনা করা সহজ হয়।

সম্পাদক
২৮/০৮/২০১৩

 

Although Bengalis are scattered in different parts of the world, due to online time, it seems like nowadays, in a city, everyone is sitting together in a cafe, Asia Africa is a Latin American literature. “Literary Cafe” will be the chat reflection. Responsible for writing and creativity will be its main motivation! Instead of a single editor, he will be the editor and the reader.

Do not want to say anything more about “literature cafe” at this moment. Let’s see for a while, let’s see what happened before. Knowing how the writer-reader and other creative people take it, then you can try to identify the voice of the journal. Until then literature cafes go in the café mood

Editor
01/08/2011

 

Many want to know about the standard of publication for us. You can see the literature of café in this regard. It is easy to consider the writing if there is a complete address and a short introduction to the author, such as not being published anywhere else.

Editor
28/08/2013

Facebook Comments

29 Comments

  1. কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর

    সাহিত্য ক্যাফেকে শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা। এর মেজাজ সম্পর্কে এখনও আমাদের পরিষ্কার কোনো ধারণা দেয়া হচ্ছে না। তবে এটুকু বোঝা যাচ্ছে এটি বাঙালিদের একটি অনলাইন সাহিত্য আড্ডার মতো একটি বিষয় হচ্ছে। তাহলে সুভাশিস সিনহা, পাভেল পার্থ, সঞ্জীব দ্রং বা কন্থৌজিম সুরঞ্জিতরা এতে লিখতে পারবেন তো?

    • admin

      সাহিত্য ক্যাফেতে বর্তমানে যে সব বিভাগ রয়েছে তার যে কোনটিতেই শুধু প্রাগুক্ত লেখকরা কেন যে কেউ বাংলায় লিখতে পারবেন।

  2. আলতাফ হোসেন

    ভাল লাগছে। মন্তব্য লিখতে গিয়ে অনেকের লেখা যে ভাল, খুব ভাল লেগেছে তা আর জানানো হয়নি নাম, ইমেল ইত্যাদি দিয়ে তবে মন্তব্য লিখতে হয় বলে। ফেসবুকের অভ্যাস এই আলস্যের জন্য দায়ী।

  3. মোঃমাকছুদুর রহমান

    সাহিত্য জাতিকে উদ্বুদ্ধ ও সঞ্জীবিত করে তোলে। আর এ সাহিত্য পড়ার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আপনাকে প্রাণঢালা অভিনন্দন।

    পিপড়েরা পাখা পেলে উড়তে ভালোবাসে। আরো আনন্দ পায় আগুন পেলে সেখানে খেলতে। তারা জানে যে,আগুন আমাদের পোড়াচ্ছে। কিন্তু তাদের ভালোলাগাকে তারা উপেক্ষা করতে পারে না।

    আর ঠিক আমরাও অনেকে ভালো সাহিত্য খুঁজি না ভাললাগাকে খুজে থাকি। আর তাই আমার অনুরোধ, আপনি আমাদের মাঝে আগুন নিয়ে নয় আলো নিয়ে আসবেন।

    মোঃমাকছুদুর রহমান
    খালিশা খুটামারা
    জলঢাকা,নীলফামারী

  4. মাহবুব আলী

    এর উৎপত্তি কোথায় এবং কে কে এই মহতী উদ্যোগের পেছনে আছেন? একটি লেখা জমা দেয়ার কত দিন পর প্রকাশিত হতে পারে?লেখার আকার সম্পর্কে কিছু বলুন। আমি গত ছয় সাত দিন ধরে দেখছি, লেখার পরিবর্তন অত্যন্ত ধীর। আসলে একটি লেখা কত দিন প্রথম পেজে থাকে? শুভেচ্ছা।

  5. nasir mahmud

    ধন্যবাদ বিশ্ববিস্তৃত ডালাপালাময় মনোবৃক্ষের মতো আপনার উদার অভিব্যক্তির জন্যে। ঠিকই বলেছেন আপনি, ডালপালা যতোদূরের আকাশেই বিস্তারিত হোক না কেন, তার মূল কিন্তু বাংলাদেশের মাটির গভীরেই প্রোথিত। ভালো লাগলো…
    লেখা পাঠাবো পরে..

  6. বনি আমিন

    প্রিয় কবি মাসুদ খানের ফেসবুক লিংক থেকে এটি পেয়ে আমি আপ্লূত। অজ গ্রামে বসে এতোসব কৃতি সাহিত্যের দরবারে যাওয়া সৌভাগ্যের বিষয়। আমার এক জগৎ হলো – যেখানে অবসরে ডুব দেব – তুলবো মণি-মাণিক্য।

  7. বেশ ভালো । আমি কি লেখা পাঠাতে পারবো ? এবং কি ভাবে পাঠাবো ?…. সব কিছু কি আপনারা নিয়ন্ত্রণ করেন ? কবে কোন লেখা যাবে বা যাবে না…সে টা কি আপনাদের হাতে ??? আমি তো চেষ্টা করেছি পারি নি…।পাতাটি / আড়্ড়া অবশ্যই আধুনিক…বিশ্ব জুডে পাঠশালা মোর…..

  8. ফকির সেলিম

    ভাল লেগেছে। খুব ভাল। কয়েকটা ছড়া পাঠালাম। সম্পাদক সাহেবের বা এই ব্লগটি চালু রাখার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের পরিচয় না জানতে পেরে দু:খ পেলাম। কোথাও থাকলে ভাল হতো।

  9. বিপ্লব

    ভাই আপনাদের কাছে লেখা পাঠালে আপনাদের যদি পছন্দ হয় তাহলে কোন মেসেজ লেখক এর কাছে পাঠান নাকি সেটা একটু জানতে চাই

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।