শেষ হল ভারত-বাংলাদেশ আর্ট সামিট ২০১১


আগষ্টের এক থেকে সাত তারিখ পর্যন্ত মুম্বাইয়ের মিউজিয়াম আর্ট গ্যালারিতে অনুষ্ঠিত হলো ভারত-বাংলাদেশ আর্ট সামিট ২০১১। দু’দেশের ২৫ জন শিল্পী এতে অংশ নেয়। গত জুন মাসে মাত্র দু’দিনের ব্যবধানে মৃত্যুবরণকারী উপমহাদেশের দু’জন বরেণ্য শিল্পী, মকবুল ফিদা হোসেন (৯৫) ও মোহাম্মদ কিবরিয়াকে (৮২) নিবেদিত এই সামিট শিল্পীদের এক চমৎকার মিলন মেলায় পরিণত হয়। এখনে মোট ৫৬টি চিত্রকর্ম প্রদর্শিত
হয়।

বাংলাদেশ থেকে সম্মেলনে অংশ নেন শিল্পী আব্দুস সাকুর শাহ, সমরজিৎ রায়, কালিদাস কর্মকার, বীরেন সোম, মোহাম্মদ ইকবাল, আফরোজা জামিল ও মাকসুদা ইকবাল নীপা। অন্যদিকে ভারত থেকে অংশ নেওয়া শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন ভাস্কর শাহ, বিশ্ব বসু, দেবব্রত চক্রবর্তী, দীপ্তি চক্রবর্তী, কাশিনাথ সালভিসহ অন্যান্য শিল্পী।

প্রদর্শনীতে নবীন-প্রবীনের অংশগ্রহণ ছিল চোখে
পড়ার মতো। এখানে একই দেওয়ালে চুয়াত্তর বছর বয়সী শিল্পী সমরজিৎ রায়ের ছবির পাশাপাশি ত্রিশ বছর বয়সী বিশ্বজিৎ গোস্বামীর ছবি স্থান পেয়েছে অবলীলায়। এঁরা দু’জনেই বাংলাদেশী! সম্মেলনের আরো কিছু বিষয় চোখে পড়ার মতো। যেমন, মূল্যের দিক দিয়ে শিল্পী শাহাবুদ্দীনের শিরোনামহীন ধাবমান মানুষের ছবির মূল্য ছিল ছয় লক্ষ ভারতীয় রুপি। এছাড়া কাশিনাথের প্রতিটি ছবির মূল্যমান ছিল আড়াই লক্ষ। বিশ্ব বসুর দু’টি ছবি প্রদর্শিত হয় মুম্বাই বোমা বিস্ফোরণে নিহতদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে, “আর নয়” এই শ্লোগান দিয়ে।

কসমস গ্রুপের সিইও জনাব এনায়েতউল্লাহ খান ও রোমানিয়ার বাংলাদেশ কনসাল জেনারেল এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন আর সমগ্র আয়োজন যৌথভাবে সমন্বয় করেন ভারতের সুখময় মজুমদার ও বাংলাদেশের আফরোজা জামিল কঙ্কা। একটা অসাধারণ কাজ করেছেনএঁরা দু’জন।

 

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *