শুভ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের কবিতা: তাদের প্রিয় কোনও বর্তমান

ডলুং নদীর কথা ভেবে গেছি বরফ জমলে কেমন দেখাতো?
আমাদের ফেব্রুয়ারি সামান্য একধরণের ঔজ্জ্বল্য
আচমকা বিদ্যুৎ শুধু জঙ্গল
অথচ তার অদূরেই ব্রিজ অপরিহার্য রাস্তা
যেমন বজ্র ও দিগন্ত, যেমন কল্পনাতীত তুষার ও ডুলুং
তেমনই আমার কথা যেমন বাড়িকে তার ভিত সমেত ওপড়ানো যায় না
যেমন শুধু ভাঙন ও নদীর পাড়
ইমারত ও পরিবর্তনের লোভ
শুধু থেকে যায় চেনা রাস্তা দিয়ে বাড়ি ফেরায়
জঙ্গলের মত হিংস্র শান্তি

আমরা তাকে খুঁজে পাবো
বেড়ালের আঁচড়ে যেভাবে তাদের প্রিয় কোনও বর্তমান

অপেক্ষা আসলে দৈববাণীর মত

সমস্ত ভাষাই পিঁপড়ের সারির মত স্বাভাবিক হওয়া উচিত
যে কোনও শব্দই পরিবর্ত খেলোয়াড়
অথচ যোগাযোগ এখনও একটা সম্ভাবনা বলে মেনে নিই

লাফিয়ে উঠেছি প্রতিটা সাক্ষাতে
ছিটকে গেছি উপলে পাথর
এমনকি স্ফুলিংগ

প্রতিটা ফেরার রাস্তা বন্ধ হয়ে আসছিল
প্রতিটা বৃষ্টির দিন নদীবর্তী

অবিসর্জন ধরে রাখা তাদের প্রিয় কোনও বর্তমান

কামনা কথায় জড়িয়ে
ছড়ানো বই কার্পেট ও গ্রীষ্মশরীর
যেভাবে শিশু বিড়ালের উলের গোলা

অথচ সন্তর্পণ, সামান্য ভয়
যেভাবে বিশ্বাস করতে সময় লেগেছে
কবিতার কোনও সমাজমূলক নেই

মেনে নাও এ রহস্য সংঘর্ষ প্রবণ শব্দ ঘুরে আসতে পারে
প্রতিফলিত ধ্বনি ও উল্লাস থেকে বহুদূরে
তাদের প্রিয় কোনও বর্তমান
বায়ুমণ্ডল, প্রবেশ ও উল্কার মধ্যে
চমক আছে,  দর্পণ ও পারদ বিনুনি দেওয়া
ভস্মবৃষ্টি

বাতাস জুড়ে নিচ্ছিল সংকেত লিপি, আলোর আঠা
আমরা সামান্য পিছিয়ে লক্ষ্য করছিলাম
ভাজা পেঁয়াজ দুপুর ও তার শরীর ঘিরে নেওয়া
এশহরে আমাদের  ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা একধরণের তুষার বিস্ময়

রাতের বেলা আসা গান বা তপতপে একটা মনোজ কুসুম
জল আমাদের প্রেম উশকে দিয়েছে জাতিগতভাবে
শুধু বিঘত খানেক মাকড়শার জালে আলো হিমায়ন
আমাদের পিছিয়ে দেয়

আমরা ভাবতেও পারিনি মিছিল বা বিক্ষোভের
আর কোনও অর্থ থাকবে না
বিগত কোনও প্রজাতির মত স্তব্ধতা
শুধু জীবাশ্ম তাদের প্রিয় কোনও বর্তমান

ভাষা এক মারাত্মক মাটি
আমাদের হাতে ক্রমশ ফ্যাকাশে একটা মৃৎপাত্র
আমরা অবিশ্বাসে ভরে করে পিছনে তাকাবো
ভঙ্গুরতা ও আমাদের ভাষাপাত্রের টুকরো
কিন্তু শ্বাসকে দীর্ঘ করে তুলবো না

শুধু কথ্য হয়ে থেকে যাবো বড়জোর একশো বছর!

 

শুভ্র বন্দ্যোপাধ্যায়, জন্ম ১৯৭৮, কলকাতা। বাংলায় প্রকাশিত কবিতার বই ৪টি। বৌদ্ধলেখমালা ও অন্যান্য শ্রমণ কাব্যগ্রন্থের জন্য সাহিত্য আকাদেমির যুব পুরস্কার, পেয়েছেন মল্লিকা সেনগুপ্ত পুরস্কারও। স্পেনে পেয়েছেন আন্তোনিও মাচাদো কবিতাবৃত্তি, পোয়েতাস দে ওত্রোস মুন্দোস সম্মাননা। স্পেনে তিনটি কবিতার বই প্রকাশ পেয়েছে। ডাক পেয়েছেন মেদেইয়িন আন্তর্জাতিক কবিতা উৎসব ও এক্সপোয়েসিয়া, জয়পুর লিটেরারি মিট সহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসবে। অংশ নিয়েছেন Poetry connections India-Wales প্রকল্পে।

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।