রিতা পেত্রৌ’র কবিতা

হিন্দি থেকে ভাষান্তর: অজিত দাশ

[রিতা পেত্রৌ আধুনিক আলবেনিয়ান কবিতায় এক সুপরিচিত নাম। তাঁর জন্ম আলবেনিয়ার রাজধানী তিরানায় ১৩ মার্চ ১৯৬২ সালে। আশি দশকে তিনি তিরানা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আলবেনিয় ভাষা এবং সাহিত্যে পড়াশোনা করেন এবং ১৯৯৩ সালে এথেন্স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রীক দর্শন সংস্কৃতিতে বিশেষ ডিগ্রি অর্জন করেন। আলবেনিয়ার স্কুল অব পাবলিশিং হাউজের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করার পাশাপাশি আলবেনিয় ভাষা ও সাহিত্য বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে সক্রিয় অংশগ্রহণ রয়েছে তাঁর। এ পর্যন্ত তিনটি কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে এবং পৃথিবীর কয়েকটি ভাষায় অনূদিত হয়েছে। রিতা পত্রৌর কবিতায় প্রেম কেবল শরীরি নয়। তাঁর কবিতা ভাবনা, বিচার এবং সংবেদনশীলতা নারী-পুরুষ ছাড়িয়ে এক সূক্ষ্ম স্পিরিচুয়াল আবেদন তৈরি করে। প্রেম, রাগ, আনন্দের চিত্রকল্প ছাড়াও দুঃখ, বেদনার এক অন্যরকম অনুভূতি নিয়ে হাজির হন তিনি কবিতায়।  হিন্দি ভাষার কবি-অনুবাদক সিদ্ধেশ্বর সিংহের হিন্দি অনুবাদ থেকে এই কবিতাগুলো বাংলায় অনুবাদ করা হয়েছে ।]

 

প্রতিশ্রুতি চেও না
আমার কাছে প্রতিশ্রুতি চেওনা
চাবির মতো গুম হয়ে যায় প্রতিশ্রুতি

আমার কাছে প্রতিনিয়ত প্রেম চেওনা
পাশেই দেখো ডুবে যাচ্ছে-অনন্ত আর মৃত্যুর ছায়া

চেওনা এমন কোনো শব্দ আমি উচ্চারণ করি
দৃশ্যের চেয়ে অধিক কোনো অর্থ নেই শব্দের

চাইলে, এইটুকু চাও-
যেন আমি পরিবর্তন করতে পারি
তোমার জীবনের কোনো একটা শব্দ

 

জ্যাকেট

এই ঘর
কেমন শূন্য আর হিম হয়ে যাওয়া জলের মতো ঠান্ডা
অথচ আমাকে উষ্ণতা দেয়
তোমার ভাজ করে রাখা জ্যাকেট।

 

অনেক পান করেছি
অনেক পান করেছি কফি
কাপের নিচেও সামান্য জমে আছে
দু-এক ফোটা।

সিগরেট ধরিয়েছি
কাপের নিচে সামান্য জমে আছে ছাই।

উচ্চারণ করেছি কিছু শব্দ
আমার আওয়াজ সামান্য পড়ে আছে
খালি গ্লাসের তলে।

ভালবাসিনি কখনো
অথচ আমার বিশ্বাস সামান্য পড়ে আছে
হৃদয়ের অতল গহ্বরে।

 

যেমন আছি, তেমন থাকতে দাও

যেমন আছি, তেমন থাকতে দাও
যদি ঘুম এসে যায় গাছেদের মাঝে
হতে পারে আধ কাপড়ে শুয়ে আছি
তবুও যেমন আছি, তেমন থাকতে দাও

গাছের মতো আমারও অধিকার আছে
নির্বসন হওয়ার কৌতুকে।

 

পূর্ণত্ব

ঈশ্বর- একজন পুরুষ
নিজের অশ্রু দিয়ে রচনা করেছেন পৃথিবী-
পৃথিবী- একজ দুঃখী নারী
নিজের দুঃখে দিয়েছেন তাঁর পূর্ণতা

————-

অজিত দাশ

জন্ম- ১৯৮৯, কুমিল্লায়। কবিতা ও ছোটগল্প লেখার পাশাপাশি অনুবাদ করেন। এ পর্যন্ত দুটো অনুবাদ গ্রন্থ বের হয়েছে। ওশোর গল্প (২০১৮, বেহুলাবাংলা), প্রজ্ঞাবীজ (২০১৯, মাওলা ব্রাদার্স)।

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।