এলিজি


সুবীর সরকার

১।
তাঁতশিল্পের কথা শোনাই মৎসপিপাসুকে
প্রধান খাদ্যের বদলে রকমারী
                    দ্রব্য
ঢালু চালের বাড়ি। কাঠের
                 পা।
বৃষ্টিহীন মাঠে মাঠে কাঁটাগাছ
সংরক্ষণ কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে ফলাহার
চর্মরোগীদের নিযুক্ত করা হচ্ছে
                    গালিচা শিল্পে
চা-পান বিরতিতে বাঁশি শুনি
পেখম মেলার অবসর পায় না
                    ময়ুরী
২।
খামারবাড়ি চলে যাচ্ছি নির্বাসনে
যেখানে লালশাক, ভেটকি মাছ
খালবিল টপকায় সফেদ ঘোড়া
চূড়ান্ত নিঃস্ব হতে হতে লোকগান
হাততালি ধ্বনি হয়ে প্রতিধ্বনীতে
                      ফেরে
বাহির খোলানে জাগে শালফুল


৩।
বসন্তেও বরফ পড়ে
নৈশাহার সেরে নিই
নেকড়ে ও ভালুকের কান্না
ডুলি ও হাতপাখা
বরফ জমছে
        খোঁপার কাঁটায়
৪।
সমগ্র হয়ে উঠতে চাইলে
তুমি প্রাসঙ্গিকতা হারাবে
কথার ফাঁকে বনভূমি
রণপা চড়ে কারা বা
              আসে
ঝুঁকে পড়া অন্ধকার
জলাধারে শুকনো পাতা
আগুনের পাশে বিষাদ—
৫।
ধ্বনিশব্দে ঘুঙুর—
শাকাহারী গিনিপিগ
তালিকাভুক্ত আহ্লাদগুলি
থেকে থেকে হাওয়া
             ছাড়ে
Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *