হূবনাথ পান্ডের চারটি কবিতা

[১৯৬৫ সালের ১৩ এপ্রিল বেনারসে কবি হূবনাথ পান্ডের জন্ম। আধুনিক হিন্দি কবিতার জগতে বহুচর্চিত তাঁর কবিতা। সমকালীন বিষয়, রাজনীতি, সামাজিক বৈষম্য … এ সবই তাঁর কবিতার বিষয়। ‘কৌয়ে’, ‘লোয়ার পরেল’, ‘মিট্টী’, ‘অকাল’ প্রমুখ তাঁর উল্লেখযোগ্য কয়েকটি কাব্যগ্রন্থ। বর্তমানে কবি হূবনাথ পান্ডে মুম্বাই বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দি বিভাগের অধ্যাপক।]

 

তিনি

শব্দকে ভাঙেন,
চিরে ফেলেন মাঝবরাবর,
অনায়াসেই পৃথক করেন তিনি
মাংস মজ্জা অস্থি …

পছন্দসই ভুসি ভ’রে
শব্দের চামড়াকে তারপর
সুনিপুণ সেলাই করে দেন।
তারপর মনমতো রঙে রাঙিয়ে
শুকিয়ে নেন ছায়ায়।

নজরকাড়া, রঙিন, আকর্ষক
ভুসিভরা শব্দেরা তখন
হয়ে ওঠে আরও সুন্দর,
আরও বাণিজ্যমুখী।

শোনা যায় —
পয়সা যেমন,
এই কারবারে খ্যাতিও জোটে অঢেল।
আর এই সব কসাইদের নামও
বেশ সম্ভ্রমের সঙ্গে উচ্চারিত হয়।

কবিও, এমনই একটি নাম !

রাজা

ভীরু রাজা
ভয়ঙ্কর সুরক্ষার মধ্যে থেকে
ত্রস্ত প্রজাদের
নির্ভয় থাকতে আহ্বান করলেন।

ভয়ে কুঁকড়ে-থাকা প্রজাদল
সসঙ্কোচে তালি বাজালো …

জেড প্লাস সুরক্ষায় বেষ্টিত
ভীতু রাজা
ভয়-পাওয়া প্রজাদের
আরো ভয় দেখিয়ে
অবশেষে
নির্ভয়ে চলে গেলেন !

খেলা

মিথ্যেকে হাজির করতেই
সটান দাঁড়িয়ে পড়লো সত্য
সম্মানে
টেবিল মুছলো বিশ্বাস,
জলের গেলাস হাতে
দাঁড়িয়েছিল ভালোমানুষি,
কখন আসে তার পালা
এই অপেক্ষায়
ঝলসানো রোদ্দুরে ঠায়
লাইনে দাঁড়িয়েছিল
মেহনত-মজদুরি।

ইজ্জতের সিংহাসনে
বসার আগে মিথ্যে
কৃপাদৃষ্টি নিক্ষেপ করলো
সবার ওপর
এবং
মৃদু হাসতে হাসতে বললো,
চলো —
শুরু করা যাক
সততার খেলা !

সম্পর্ক

জনহীন জঙ্গলে
একলা মানুষ
ঘুরতে ঘুরতে যেন ভয় না পায়,
যেন হারিয়ে না যায়,
ঘুঙুরের মত বাজতে থাকে সম্পর্ক ;
তার রুনুঝুনু শব্দে তখন
বুঝতে পারি, মানুষ একা নয়।

সম্পর্ক যেন
বন্যার জলে ভেসে যাওয়া
মানুষের কাছে বাড়িয়ে দেওয়া হাত,
যেন পারের ঠিকানা।
প্রবল শীতে উষ্ণ কম্বল হয়ে জড়িয়ে-থাকা,
বাতাসে বইছে লু, রৌদ্রতপ্ত দুপুরে
বটের ঘন ছায়া যেন সম্পর্ক।
গন্তব্যে পৌঁছে-যাওয়া যেন ক্লান্ত চরণ,
দাদির কোলে ঝিমুতে ঝিমুতে
সম্পর্ক যেন স্বপ্নে-দেখা গাঁ।

সম্পর্ক
আত্মীয় নয়, পরও নয় ;
যেন শুধু ফুলের মধ্যে যেমন সৌরভ,
দেহের মধ্যে যেমন আত্মা,
আর পাথরের মধ্যে যেমন ঈশ্বর …

কোনো যাচাই নয়,
দরকার শুধু বিশ্বাসের।
তার কারণ থাক বা না-থাক
বলা নিষ্প্রয়োজন —
যতদিন বাঁধা আছে এই বন্ধন,
মানুষ ততদিনই মানুষ !
নতুবা
শ্বাস কিংবা সম্পর্কের সুতো
ছিঁড়ে গেলে একবার
সবকিছুই এক ও একাকার।

 

স্বপন নাগ


কবি ও লেখক, উত্তর ২৪ পরগনা, ভারত

 

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।