আবদুর রবের কবিতা:ঘূর্ণাবর্ত

আবদুর রব

এ জীবনে শুধু
ঘূর্ণাবর্ত হয়ে বেঁচে থাকা, পথ চলা।
চিন্তা ও আবেগে ঘনীভূত হয়ে
আছড়ে আছড়ে পড়া।
কখনও নিস্তেজ কখনওবা
খাপখোলা তলোয়ার।

সমুদ্রকে পিছে ফেলে
জলীয়বাষ্পের ওড়াউড়ি, ঘামে
সমুদ্রের নুন।

ভাগ্য ও প্রকৃতি
একসাথে গড়া, টাইটানিক হয়ে
একে অপরের মধ্যে ডুবে যাওয়া।

আলো অন্ধকারে অস্তিত্বের এই ঘূর্ণাবর্ত
সরে সরে যায়
স্থান থেকে স্থানান্তরে।

এই দেহ যেন দিনরাত্রি শীতগ্রীষ্ম
বসন্ত বিকল্প।
এই মন যেন সেই দৃষ্টিশক্তি
অন্ধকারে যা দেখতে পায়!

বিষণ্ণতা আর একাকীত্ব নিয়ে তাই
বেঁচে থাকা মানে
পৃথিবীর সাথে সময় কাটানো।

অথচ জানালায় যতটুকু বরফ জমেছে
তার চেয়ে বেশী উষ্ণতা তোমাকে
দিতে পারি আমি!

২১/০১/২০১৮

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।