চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি—১৮

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) হিটলার-অন-স্পেশাল-ডিউটি… অন-ইটারনালি-স্পেশাল-ডিউটি ঘুঘুডাঙ্গা পরগনার চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন। যেমন সে উঁচালম্বা, তেমনই তার ফিগার, তেমনই তার গায়ের রং। যেন সাক্ষাৎ কার্তিক। কিংবা মূর্তিমান অ্যাপোলো দেবতা। এমএ পাশ। ডবল এমএ। আগে ছিল আন্তঃদেশীয় ডাকাতদলের ইস্টার্ন কমান্ডের কমান্ডার। দুর্ধর্ষ এক ডাকাতসর্দার। ভয়ে কাঁপত আশেপাশের কয়েক পরগনা। ডাকাতদলে যোগ দেবার …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি—১৭

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) ব্রাহ্মণ ও ক্ষত্রিয়দের যৌথবাহিনী বহুদিন ধরে হকসেদের জ্ঞানকাণ্ডীয় উৎপাতে অতিষ্ঠ ও অপমানিত এলাকার মাতব্বর- ও পণ্ডিত-কুল। তারা ঠিক করেছে আজ ঠেক দেবে হকসেদকে। ঠেঙানিও দেবে ভাবমতন। এ কাজে ছাত্র-সিন্ডিকেটের কয়েকজন মাস্তানও জোগাড় করা হয়েছে চুক্তি ভিত্তিতে। সবাই মিলে যুক্তি করে ওঁৎ পেতে বসে আছে হকসেদের প্রস্থানপথের …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি—১৬

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) এসি সিনড্রোম, গণসম্মোহন ও শিশু বিলকিস বানু যেভাবে পির-মা বিলকিস বানু হলেন হাজি আলতাফ সিদ্দিকী। নবীন হাজি। হজ করেছে একবারে তরুণ বয়সে, হোঁচট খেয়ে। অবশ্য এখনো তরুণ সে— নম্র, ভদ্র, পরহেজগার। আমাদের এই পির-মা বিলকিস বানু ছিলেন আলতাফ হাজির প্রথমা কন্যা। বিলকিস বানুকে জন্ম দিতে গিয়ে …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি—১৫

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) ওরসের দিনে ঝরে লাল চা’ল পিরের কবরে কিংবা জাত-পাত-ধর্ম-বর্ণ-শ্রেণী সব একাকার মাজারে আজ বার্ষিক ওরস মোবারক। লাল সালুর নিচে শুয়ে আছেন যে পির, তিনি একাধারে নারী এবং শিশু, নাম বিলকিস বানু। সবাই ডাকে ‘পির-মা বিলকিস বানু’। তাঁরই স্মরণে এই বার্ষিক ওরস। প্রতিবছর শ্রাবণ মাসের শুক্লপক্ষের পঞ্চমী …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি—১৪

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) শীত যায় গীত গায়/ শিল পড়ে কিল খায় ঝড়ের প্রকোপ বাড়তেই থাকে ক্রমশ। একপর্যায়ে ঝড়ের কেন্দ্রে তৈরি হয় এক বিশেষ ধরনের ঘোর ও ঘূর্ণি, যার প্রভাবে হাওয়ায় জাগে তীব্র কেন্দ্রাতিগ টান। প্রকৃতি যেন এক অতিকায় অদৃশ্য সেন্ট্রিফিউগাল মেশিন বসিয়ে দিয়েছে ঝড়ের উৎকেন্দ্রে। ঝড় যেদিকে যায়, অদৃশ্য …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-১৩

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) হকসেদের অগস্ত্যযাত্রা হকসেদ আজ হনহন করে হাঁটছে উত্তরের দিকে। সঙ্গে তিন জন। একজন একটু আলে-খাটো, বোঝে কম, বা বুঝলেও দেরিতে বোঝে। আরেকজন ঘাউরা স্বভাবের, কথায় কথায় খালি উজানি ধরে। আজ হয়েছে কী হকসেদের! যা কিছুই করছে, সবই দ্রুতবেগে– হাঁটছে দ্রুত, কথা বলছে দ্রুত। আর সেই সাথে …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-১২

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) মর্কটে কর্কট এবং সারস্বত সঙ্কট  পাশের ভাঙাচোরা স্কুলঘর থেকে ভেসে আসে সুকুমার রায়ের ছড়ার লাইন। বৃন্দস্বরে পাঠ করছে ছাত্ররা, “কাঁচাও ভালো, পাকাও ভালো/ সোজাও ভালো, বাঁকাও ভালো…//” এগিয়ে গিয়ে দেখি, ও মা, মাস্টার তো সেই প্রবীণ শিয়ালপণ্ডিত— নাম যার ‘চিকন জ্ঞানী’ ওরফে ‘কাঁঠালগন্ধা’। ভিজিটিং লেকচারার হিসাবে …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-১১

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) ইরোটিকস অব আর্ট অ্যান্ড কালচার বগুড়া বেড়াতে গেছি বহুকাল পরে। আগের মতো আর নাই বগুড়া শহর। সময়ের ধাক্কা ও প্রহারে পাল্টে গেছে অনেক কিছু। হকসেদ, আমি ও আরও কয়েকজন— একসঙ্গে হাঁটছি বগুড়ার পথে ও বিপথে, বসন্তসন্ধ্যার মৃদুমন্দ হাওয়ার ভেতর। আকাশে বিচিত্র রঙের খণ্ড-খণ্ড মেঘ-ধূসর, শ্যামবর্ণ, চিনিগুঁড়া, …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-১০

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) মধু ও বিষাদের ঐকতান… এ অঞ্চলে যে কত মধু ও বিষাদের ঐকতান, বেদনা ও হাসাহাসির অর্কেস্ট্রা, ইয়ত্তা নাই তার। ওই যে কার্তিকের জ্যোৎস্নায় শিশিরভেজা নাড়ার খেত মাড়িয়ে হেঁটে চলেছে অসমবয়সী দুই মানবসন্তান। পিতাপুত্র। পিতা ছাত্তার। পুত্র ডেভিড; ছেলেবেলার নাম মোস্তফা। বহুবছর পর দৈবাৎ দেখা বাবায়-ছেলেতে। ফিরে-পাওয়া …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৯

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) অচল হীরকের জাগে সচল রত্নরীতি দিকে দিকে… কত অলৌকিক ঘটনা ঘটে এই লৌকিক দুনিয়ায়! বাস্তবতার রঙ্গমঞ্চে অভিনীত হয় কত অবাস্তব নাটক! কিন্তু মহাস্থানগড়ের এই এলাকাটুকুতে মাঝেমধ্যে এমনসব ঘটনা ঘটে যেগুলি একাকার করে দিয়ে যায় লৌকিক-অলৌকিকের ভেদরেখা। পেরিয়ে যায় বাস্তব-অবাস্তবের সংজ্ঞা ও সীমানা। এইসব অবাক-অচেনা ঘটনায় লোকে …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৮

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) আঙুর ও কামরাঙা ভরে ওঠে হর্ষবিষাদ রসে… ঘুমঘুম উদাস দুপুর। সমগ্র চরাচর যেন ঝিমাচ্ছে নিঃশব্দে। ফসলের মাঠে, গাছের পাতায়, করতোয়ার জলে বাতাসের যে হল্লা, হাওয়ার যে গুলতানি ছিল সকালবেলার দিকে, থেমে গেছে সব। কলহপরায়ণ সাতভাই পাখির দল, কলহ থামিয়ে চুপচাপ বসে আছে গাছের ডালে ডালে। চোখের …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৭

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) সময়, ইতিহাস ও ভূগোলের বাহির থেকে উঠে আসা এক প্রহেলিকা-মানব… কত যে রহস্যজড়ানো, কুহকজাগানো ঘটনায় ভরা মহাস্থানগড়ের এই ছোট্ট অঞ্চলটুকু! প্রিয় পাঠকপাঠিকা ভাইবোনবন্ধুগণ, আপনাদের নিশ্চয়ই মনে পড়বে এর আগে হকসেদে নামে একজনের কথা বলেছিলাম অল্প একটু। এই যে হকসেদ খোজা (খাজা নয়, খোজা, হকসেদ খোজা), অদ্ভুত …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৬

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) রঙ্গ ও রহস্যভরা প্রদেশ… রঙ্গভরা বঙ্গদেশে কত যে রঙ্গ-রগড় হয়! এইতো সেদিন আক্কেলডাঙ্গা ইউনিয়নের গমচোরা চেয়ারম্যান আলফাজ উদ্দিন রাগের চোটে, বিগাড়ের বশে ঘোষণা দিয়ে বসল আমরণ অনশনের। গম বরাদ্দ পেয়েছে কম। চেয়ারম্যানের এক পেয়ারা ইল্লৎ অনুচর কুবুদ্ধি দিয়েছে তাকে, “এক কাজ করেন, আমরণ অনশন শুরু কইরা …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৫

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) এলিয়েনের ধরিত্রীলীলা সাঙ্গ… প্রাণীটা খুবসম্ভব উভচর, কারণ, মাঝে-মধ্যে গভীর রাতে মনে হয় উঠে আসত সে অথইদহ থেকে। ডাঙায় রেখে যেত পদচিহ্ন। ধরিত্রীর বুকে ভিনগ্রহের ইকোলজিক্যাল ফুটপ্রিন্ট। এলিয়েনটাকে দেখার পর স্থানীয়রা বলাবলি শুরু করে দিলো, “তাই তো কই, বছর-বছর আমাগো খ্যাতের ফসল, গাছপালা, জঙ্গলমঙ্গল সব ডামেশ কইরা …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৪

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) অতিগাগনিক উৎপাত… মাহী-সওয়ার কলেজ। জনশ্রুতি আছে, হজরত শাহ সুলতান নামের এক দরবেশ এক বিশাল মাছের পিঠে চড়ে করতোয়া নদী দিয়ে ভেসে এসে নেমেছিলেন এইখানে, এই ঘাটে। সেই থেকে দরবেশের নাম হজরত শাহ সুলতান মাহী-সওয়ার আর তাঁর নামে নাম এই বিদ্যায়তনের। কলেজের পাশ দিয়ে লালচে ধূলি-ওড়া পথ। …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-৩

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) শ্রুতি ছুঁয়ে যাচ্ছে শ্রুতি, হৃদিতে মিশছে হৃদি, শ্রবণে শ্রবণ… কবি ফখরুল আহসানের সঙ্গে রিকশায় চলেছি। রিকশা চলছে তো চলছেই, তন্দ্রাচ্ছন্ন, মদালস। দুপুরের রোদের ভেতর দিয়ে ঘুরে ঘুরে ঠনঠনিয়া, কানছগাড়ি, মালতিনগর, জলেশ্বরীতলা…। রাস্তার ধারে এক ছোকরা নাপিত টুল ও চেয়ার পেতে, আয়না খাটিয়ে বসে পড়েছে দিব্যি। টেকোমাথা …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-২

মাসুদ খান (পূর্বপ্রকাশিত-র পর) আফিম-খেতের হাওয়া… একজন লোক। খুবসম্ভব কোনো ওষুধ কোম্পানির বিক্রয়-প্রতিনিধি। নতুন এসেছেন এ শহরে। হয়তো দূরের কোনো শহর থেকে। হাতে ব্যাগ। সন্ধ্যার পর শ্যামলী-তে আহার সেরে বাইরে এসে আরাম করে পান চিবাচ্ছেন। তাম্বুলরসে রঞ্জিত তার মন ও মুখ। চোখেমুখে ফুর্তি-ফুর্তি ভাব। লম্বা জাহাজের মতো এক সিনেমা হল। …

সম্পুর্ন​

চাঁদ, প্রজাপতি ও জংলি ফুলের সম্প্রীতি-১

মাসুদ খান সেই এক দেশ আছে… সেই এক দেশ আছে, যে-দেশে নানান প্রথা, নানা কথা, রীতি যে-দেশে বনেদি চাঁদ, প্রজাপতি আর জংলি ফুলের সম্প্রীতি আর দুগ্ধনদীতে প্লাবন তোলা সুশীলা কপিলা, ননী আর ননীচোরা… যে-দেশে বেকার বসে থাকে, প্রায়-প্রায়ই, ডাকহরকরা– কেননা সে-দেশে বার্তা নেই কোনো প্রেমবার্তা ছাড়া, আর তা বয়ে নিয়ে …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর গানের লিরিক: শেষ পর্ব

প র্ব-১।। প র্ব-২।। প র্ব-৩।। পর্ব-৪ গীতি ২১. কুল ও কানাই কোনোটাই নাই পড়েছি বিষম ঘোরে বিকারের ঝোঁকে রেখা যায় বেঁকে বৃত্ত রচনা করে ।। বিশাল বৃত্তে বিষাদচিত্তে ছোট্ট বৃত্তচাপ জেগে আছে একা– দূর থেকে দেখা জ্যামিতিক অভিশাপ। যমুনার কালো জল ও জ্যামিতি পাল্টায় দ্রুত স্বরে বিকারের ঝোঁকে রেখা …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর গানের লিরিক: পর্ব-৪

প র্ব-১।। প র্ব-২।। প র্ব-৩।।   গীতি ১৬. তোমার সহগ হয়েই ঘুরি তোমার সহগ হয়েই মরি তোমার সঙ্গে সহমরণে একই-সে চিতায় চড়ি ।। তোমার দেহে যে রূপক-ভার আমার শরীরে প্রভাব তার অমায় কিংবা পূর্ণিমায় জাগায় ঘোর জোয়ার। তোমার সহগ হয়েই ঘুরি তোমার সহগ হয়েই মরি তোমার সঙ্গে সহমরণে একই-সে চিতায় …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর গানের লিরিক: পর্ব-৩

প র্ব-১।। প র্ব-২।। গীতি ১১. কোন-বা জাতির জাতক তুমি, কোন-বা প্রাণের প্রাণী আঁধারতমা আলোকরূপে তোমায় আমি জানি ।। কোন-বা জলের জলজ আহা কোন ঝরনায় বাস কোন অম্লজানের হাওয়ায় নিচ্ছ তুমি শ্বাস কোন ঝরনার জলে শোধন সারাদিনের গ্লানি আঁধারতমা আলোকরূপে তোমায় আমি জানি ।। কোন ঘটনার অনুঘটক, কোন জারণের জারক …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর গানের লিরিক: পর্ব-২

গীতি ৫. বহুকাল পরে তীর্থ বসেছে দূরে আলো জ্বলে আজ ওই দ্যাখো ওই উজ্জ্বল রূপপুরে ।। মন যেতে চায়, আহা কীভাবে যে যাই! ঠিকানা জানি না, পথও চিনি না, হায় শেষ নৌকাটি সেও গেছে ছেড়ে কোথায় যে কোন্ দূরে! আলো জ্বলে আজ ওই দ্যাখো ওই উজ্জ্বল রূপপুরে ।। বহু ধাঁধাপথ …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর গানের লিরিক: পর্ব-১

গীতি ১. দেহখানা এই দেহ নয় ঠিক, শুধু সন্দেহ, ঘোর নেশা আজব ভাণ্ড, কীর্তিকাণ্ড, ভাণ্ডটা খুব পর-ঘেঁষা ।। আগুনকে বশ করছে পবন পবনকে বশ করে কোন্ জন? তরলে বায়ুর শাসন মণিতে আয়ুর আসন, অন্বেষা… আজব ভাণ্ড, কীর্তিকাণ্ড, ভাণ্ডটা খুব পর-ঘেঁষা ।। মাটি ও লবণ, দুজনেই বশ জলের কাছে মোম থাকে …

সম্পুর্ন​

চিত্রনাট্যের খসড়া: ইচ্ছাপূরণের দেশে – ২

  ইচ্ছাপূরণের দেশে – ১ মাসুদ খান                                                                                                                                                              লং শট: জনশূন্য শস্যহীন প্রান্তর। খরায় ফেটে চৌচির। সময় – খাঁ-খাঁ দুপুর। নির্মেঘ আকাশ। ঝাঁ-ঝাঁ রৌদ্র। একা একটি ঝাকড়া গাছ। ক্যামেরা জুম ইন করতে করতে ফ্রেমের মধ্যে গাছ, একটি ছোট্ট পুকুর। স্বচ্ছ পানি। পুকুরের চারিদিকের পাড় খরায় পোড়া। তবে পুকুরের কিনারের পানিতে কলমিলতা, হেলেঞ্চা, থানকুনি, …

সম্পুর্ন​

চিত্রনাট্যের খসড়া: ইচ্ছাপূরণের দেশে – ১

মাসুদ খান লং শট: বিস্তীর্ণ বালুচর। নদীর খাড়ি। বৈশাখ মাস। দুপুর বেলা। চিনা-কাউনের ক্ষেত। তাতে ছোট-ছোট হালকা-পাতলা গাছ। তাদের ওপর দিয়ে হাওয়া বয়ে যাবে মাঝে মাঝে, দমকে দমকে। কখনো কখনো ধূলির ঘূর্ণি। একটা বড় ধূলিঘূর্ণি আশপাশ অন্ধকার করে মাঠের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের দিকে ছুটে যেতে থাকবে। একসময় ঘূর্ণিটা …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর একগুচ্ছ কবিতা

    ডাকাতি সাহাদের বাড়িতে ডাকাত পড়েছে। মাথায় মারণকল ঠেকিয়ে বাড়ির লোকজনদের বেঁধে রেখে ডাকাতি করছে ডাকাতের দল। এরই মধ্যে কোনো এক ফাঁকে সাহাদের আদর-কাড়া হোঁদলকুতকুতে ছোট্ট ছেলেটি আতঙ্কিত হয়ে হামাগুড়ি দিয়ে এসে উঠে পড়েছে ভীষণদর্শন এক ডাকাতের কোলে। আঙুল চুষতে চুষতে ঘুমিয়েও পড়েছে একসময়। পাড়ায় শোর পড়েছে, ভোর হয়ে …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খান-এর একগুচ্ছ ছড়া

  নদীতে আগুন ধ’রে… নদীতে আগুন ধ’রে মাছ পুড়ে যায় নদীপোড়া গন্ধে তো ঘরে টেকা দায়! মাছরাঙা বক-চিল সেই ঘ্রাণ পায় চিলাহাটি থেকে চিল চিলমারি ধায়। নদী কোথা! এ যে নদ! ব্রহ্মের পুত্র আগ লাগে এই নদে! কী-বা সেই সূত্র? ভোঁদড়ে ধরেছে পোড়া শোল টাটকিনি তা-ই দেখে আহ্লাদে নাচে ভোঁদড়িনী। …

সম্পুর্ন​

রবীন্দ্রনাথের জন্মের দেড়শো বছর স্মরণ: পারস্যে রবীন্দ্রনাথ ২

                                                        আগের কিস্তি: পারস্যে রবীন্দ্রনাথ ১ অনুবাদ: মাসুদ খান ইরানের জনৈক সাংসদের সঙ্গে কবির আলোচনা রবীন্দ্রনাথ: পারস্য ছেড়ে চলে যাবার দিন ঘনিয়ে আসছে আমার। বেশি দিন থাকিনি এখানে, তবু নিজেকে ভিনদেশি বলে বোধ হচ্ছে না। অবাক ব্যাপার, যদিও আপনাদের ভাষা জানি না, তবু কোনো না কোনোভাবে আমি আপনাদের খুব কাছাকাছি চলে …

সম্পুর্ন​

রবীন্দ্রনাথের জন্মের দেড়শো বছর স্মরণ: পারস্যে রবীন্দ্রনাথ ১

অনুবাদ: মাসুদ খান ‘ইস্পাহান’ পত্রিকার সম্পাদকের সঙ্গে আলাপ ২৫ এপ্রিল, ১৯৩২ প্রশ্ন: স্বাগতম, মহাশয়, এই দেশে আপনাকে স্বাগতম। এ ভূমি আপনাকে দিচ্ছে সমুচ্চ সম্মানের স্থান। এ যাবৎ কেমন উপভোগ করলেন এ দেশে আপনার সফর, জানতে পারি কি? কবি: সুন্দর আপনাদের এই দেশ আর অভিভূতকর আপনাদের মেহমানদারি। যেখানেই গেছি, দারুণ উপভোগ্য …

সম্পুর্ন​

রবীন্দ্রনাথের জন্মের দেড়শো বছর স্মরণ: বাংলা ভাষা

মাসুদ খান [তাঁর হাতে গড়া এই আধুনিক বাংলা ভাষা। একে আরো বিকশিত করে তুলবেন, আরো উৎকর্ষের দিকে নিয়ে যাবেন ভবিষ্যতের প্রতিভাগণ—এ ছিল তাঁর আশা ও বিশ্বাস। তিনি জানতেন-ভাষা বহতা নদীর মতো। বহমানতা আর বদলে বদলে যাওয়ার মধ্যেই নিহিত এর শক্তি ও সম্ভাবনা।… রবীন্দ্রনাথ, সেই মহোচ্চ প্রতিভার উদ্দেশে নিবেদিত আমার এই …

সম্পুর্ন​

তাই কবিতা

অনুবাদ: মাসুদ খান বুদ্ধদাস ভিক্ষু (১৯০৩-১৯৯৩)  অন্ধ আঁখিগুলি, দেখতে-পারা চোখগুলি তাকিয়ে থাকে পাখিদের ঝাঁক, অনেকক্ষণ কিন্তু কখনোই দ্যাখে না আকাশ কখনো মাছের ঝাঁক দ্যাখে না পানিকে, ঠাণ্ডা ও পরিষ্কার কেঁচোরা তাকিয়ে থাকে মাটি খায় দ্যাখে না মাটিকে কীটেরা ময়লা ঘাঁটে দ্যাখে না ময়লাকে মানুষ তো সবখানেই, অথচ দ্যাখে না দুনিয়াকে তারা ভোগে, অবশ্যই ভোগে বিষাদে, উদ্বেগে অথচ বৌদ্ধরা ধর্ম্মে শরণ নিয়ে তরিকামতে চ’লে সত্যের …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খানের অনুবাদ (৩)

১ম কিস্তি: পাবলো আন্তোনিও কুয়াদ্রা ২য় কিস্তি: ডেইজি সামোরা আলফানসো কোর্তেস (১৮৯৩-১৯৬৯) [এক কিংবদন্তির জায়গা অধিকার করে আছেন কবি আলফানসো কোর্তেস, লাতিন আমেরিকান সাহিত্যধারায়। ১৯২৭ সালে, চৌত্রিশ বছর বয়সে, ১৮ ফেব্রুয়ারির ঠিক মধ্যরাতে দেখা দেয় ঊনপঞ্চাশ বায়ুর প্রকোপ। ওই বিখ্যাত ঘটনার পর থেকে কবি কিছুদিন থাকেন ভালো, কিছুদিন ছিটগ্রস্ত, পর্য়ায়ক্রমে। …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খানের অনুবাদ (২)

১ম কিস্তি:পাবলো আন্তোনিও কুয়াদ্রা ডেইজি সামোরা (১৯৫০- ) [সমকালীন মধ্য-আমেরিকান কাব্যক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ বুজুর্গদের মধ্যে ডেইজি সামোরা অন্যতম। তাঁর কবিতায় ধ্বনিত হয় এক আপসহীন কণ্ঠস্বর। দৈনন্দিন জীবনের নানা খুঁটিনাটি পুঙ্খে-পুঙ্খে উঠে আসে তাঁর কবিতায়। রাজনীতি থেকে শুরু করে মানবাধিকার, বিপ্লব থেকে শুরু করে বিভিন্ন নারীবাদী ইস্যু, ইতিহাস থেকে শুরু করে শিল্পসাহিত্য, …

সম্পুর্ন​

মাসুদ খানের অনুবাদ কবিতা

__________________________________________________________________________________________ কবি মাসুদ খানের কবিতা কী তা পাঠকেরা জানেন। কিন্তু  এবার মাসুদ খানকে আমরা অনুবাদক হিসেবে দেখতে পাব সাহিত্য ক্যাফের পাতায়। নিকারাগুয়ার তিন কবি পাবলো আন্তোনিও কুয়াদ্রা (১৯১২-২০০২), আলফানসো কোর্তেস (১৮৯৩-১৯৬৯) ও  ডেইজি সামোরা (১৯৫০-)’র বেশ কিছু কবিতা অনুবাদ করেছেন তিনি নিজের ভাষায়। ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হবে তাঁর  এই অনুবাদ। তাই চোখ …

সম্পুর্ন​

দুটি কবিতা

মাসুদ খান দীক্ষা পথ চলতে আলো লাগে। আমি অন্ধ, আমার লাগে না কিছু। আমি বাঁশপাতার লণ্ঠন হালকা দোলাতে দোলাতে চলে যাব চীনে, জেনমঠে কিংবা চীন-চীনান্ত পেরিয়ে আরো দূরের ভূগোলে,,, ফুলে-ফুলে উথলে-ওঠা স্নিগ্ধ চেরিগাছে মৌমাছির গুঞ্জন শুনব নিষ্ঠ শ্রাবকের মতো, দেশনার ফাঁকে ফাঁকে। মন পড়ে রইবে দূরদেশে। সাধুর লাঠির বাড়ি পড়বে …

সম্পুর্ন​