ফকির ইলিয়াস- এর কবিতা

গল্পের শিল্পকথা আমার গল্প নিয়ে তুমি যে শিল্পচিত্র আঁকতে চেয়েছিলে তাতে চন্দ্রের কোনো ছবি থাকবে না সেকথা আমি তোমাকে জানিয়েছিলাম। বলেছিলাম, এ আকাশ আমার নয় – তাই তার সমস্ত বৈভব …

চৈতালী চট্টোপাধ্যায়-এর দুটি কবিতা

কফিশপ তোমার চুমুর পাশে আমার চুমুক অসম্ভব ঠাণ্ডা লাগে,লাগবেই। এক্সট্রা ক্রিমের ছাদে বরফের কুচিগুলি পাখনা উঁচিয়ে দেয় ঠোঁট পাবে বলে। এখানে যৌবন বাঁধা পড়ে আছে। এইখান থেকে যদি এক-পা বাড়াই, …

টোমাজ ট্রান্সট্রোমার-এর তিনটি কবিতা

অনুবাদ: কল্যাণী রমা অক্টোবর-এ আঁকা ছবি জাহাজ টেনে নেওয়ার ছোট নৌকাটার গায়ে ছোপ ছোপ মরচের দাগ। সমুদ্র থেকে এ-ত দূরে কেন নৌকা? এ যেন ঠাণ্ডার ভিতর এক নিভে যাওয়া বাতি। …

শিবলি সাদিক-এর একগুচ্ছ কবিতা

স্মৃতি জলাশয়ে মাছ হয়ে তোমার স্মৃতির মধ্যে ডুবে আছি। এইভাবে আজ আমি বেঁচে আছি। ইতিহাসের বাইরে। গাছ বা পাথর হয়ে। যখন প্রথম দেখা আমাদের, তখন মগজে ছিল মাছের কুসুম, শিখি …

কবিতাগুচ্ছ

সৈয়দ তারিক ১. সুরুচিস্নিগ্ধ পোশাকে আবৃত ভেতরে সমূহ নগ্ন উদ্দাম স্রোতে ভাসছিলো মন ওপরে যদিও মগ্ন। নিস্পৃহ ছিলো যদিও আঙুল আত্মায় ছিলো তৃষ্ণা, একবার বলি, ‘নে টেনে দুহাতে,’ একবার বলি,’নিস …

আরব বিপ্লবের কবি তামিম আল-বারঘুতি

অনুবাদ: মলয় রায়চৌধুরী [মিশরের তাহরির স্কোয়ারে যাঁর কবিতা বার-বার পঠিত হয়েছে, এবং পরে অন্যান্য আরব দেশগুলোর গণবিপ্লবে যাঁর কবিতা পড়া হয়েছে, তিনি তামিম আল-বারঘুতি। তামিম-এর জন্ম কায়রোতে, ১৯৭৭ সালে। তাঁর …

তেলের ছড়া

সনতোষ বড়ুয়া খেল চলছে খেল ভিন দেশীরা নিচ্ছে কেড়ে বাংলাদেশের তেল । কারা খেলায় খেল ? গদির মায়ায় যারা ফাটায় টেকো মাথায় বেল । জানিস কিছু তুই ? কারা এসে …

রবীন্দ্রনাথের জন্মের দেড়শো বছর স্মরণ: বাংলা ভাষা

মাসুদ খান [তাঁর হাতে গড়া এই আধুনিক বাংলা ভাষা। একে আরো বিকশিত করে তুলবেন, আরো উৎকর্ষের দিকে নিয়ে যাবেন ভবিষ্যতের প্রতিভাগণ—এ ছিল তাঁর আশা ও বিশ্বাস। তিনি জানতেন-ভাষা বহতা নদীর …

পশ্চিমবঙ্গের তিনজন কবি’র কাব্য-সমালোচনা

ইমরুল হাসান ‘পৃথিবীতে আজ আর হয় নাই কোনো ভাত রান্না’ — এই কথা শুইনাই বিনয় মজুমদার কইলেন, ‘ফাইজলামি করো, মিয়া! আর আমারে নিয়া কেন এত টানাটানি? আমি ত নির্বিবাদী, তথাপি …

দুটি কবিতা

রেজাউদ্দিন স্টালিন ভাস্কর্য এমন একটা জায়গায় এসে আরজ আলী দাঁড়িয়েছে সে জায়গাটার নাম দ্বন্দ্ব। জায়গাটা জ্যামিতিক হিসাবে বিন্দু কল্পনায় বৃত্ত । আরজ আলী ইচ্ছে করলে ফিরতে পারে— বাড়ির দিকে। আর …

মজনু শাহ-এর তিনটি কবিতা

অস্তিত্ব অস্তিত্বের রঙ কী– মাঝে মাঝে ভাবি। যেমন কোনো রাজমহিষীকে দেখি নি কখনো, তবু তার মুখের রঙকাহিনি মনে পড়ে। ঐ হাবা অরণ্যের পাশে, চুম্বকের বিছানাই আমার সব। রাত্রিবেলা, প্রান্তরে, দেখা …

অস্পৃশ্য

ইকবাল আজিজ দাঁড়িয়েছিলে সকাল থেকে পথের ধারে– তোমায় কেউ ছোঁয়নি কোন রানী। তুমি একাই টানলে ব্যথার ঘানি তোমায় নিয়ে কেবল কানাকানি। দাঁড়িয়েছিলে সকাল থেকে পথের ধারে পড়েছিলো কি ভূতের ছায়া …

স্মৃতিলেখা

আর্যনীল মুখোপাধ্যায়   কথা বলতে শিখে সে ক্রমশ পারলো বুঝতে পারলো প্রতিনিয়তের এই ভাষা তার ঘ্রাণেন্দ্রিয়ের মাধ্যমে যে তীব্র নিদারুণ বহতা অভিজ্ঞতা জমা হচ্ছে প্রতিদিন তার কথা বলতে পারেনা সেসব …

সেইসব চেয়ে দেখা: গদ্যপদ্য কোলাজ

ফেরদৌস নাহার আনমনা  হাঁটতে হাঁটতে চলে গিয়েছিলাম বেশ খানিকটা দূরে।  আকাশের খোলা দেয়াল বেয়ে নীলরঙ চুইয়ে পড়ছে। অন্টারিও লেকের জলে তার ছায়া পড়ে পুরো দৃশ্যটাকে একেবারে পার্শিয়ান ব্লু করে দিয়েছে। …

আবু সাঈদ ওবায়দুল্লাহ-এর তিনটি কবিতা

রিডিং গ্লাস ১ সমুদ্র লাগছে চোখে জল কাচ জল মণি কালো পর্দা সরে গিয়ে পুরোটাই নীল এইবার নারী হচ্ছে না কথাও বলছে না চুপ করে কেউ পাথর সরিয়ে ধরছে চাঁদ। …

উইকএন্ড

মিতুল দত্ত সম্পর্ক আসলে এক বেড়াতে যাবার সম্ভাবনা দূর পাহাড়ের দেশে, যেখানে কুয়াশা ঘন আরও সম্পর্ক আসলে এক সারাদিন ছিপ ফেলে রাখা গভীর জলের কাছে, গভীর মাছের দুরাশায় তুমি যা …